কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি | এক কবরে কতজনকে দাপন? | Bangla Islam

কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি
কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি এক কবরে কতজনকে দাপন Bangla Islam

মৃত ব্যক্তিকে কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি

মৃত ব্যক্তিকে দাফন করা অর্থাৎ কবরস্থ করা ফরজে কিফায়া। সাথে সাথে এটি একটি ছাওয়াবের কাজ। নিম্মে সংক্ষেপে মৃত ব্যক্তিকে কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি গুলো উল্লেখ করা হল।

১. কবরকে গভীর ও প্রশস্ত এবং সুন্দর করা ওয়াজিব। যাতে সহজে লাশ নামানো যায়।

أَخْبَرَنَا مُحَمَّدُ بْنُ مَعْمَرٍ، قَالَ حَدَّثَنَا وَهْبُ بْنُ جَرِيرٍ

قَالَ حَدَّثَنَا أَبِي قَالَ، سَمِعْتُ حُمَيْدَ بْنَ هِلاَلٍ، عَنْ سَعْدِ بْنِ هِشَامِ بْنِ عَامِرٍ، عَنْ أَبِيهِ

قَالَ ‏:‏ لَمَّا كَانَ يَوْمُ أُحُدٍ أُصِيبَ مِنَ الْمُسْلِمِينَ،

وَأَصَابَ النَّاسَ جِرَاحَاتٌ فَقَالَ رَسُولُ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم ‏:‏ ‏ “‏ احْفِرُوا وَأَوْسِعُوا،

মুহাম্মাদ ইবনু মা’মার (রহঃ) … সা’দ এর পিতা থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, যখন উহুদের দিন অনেক মুসলমানের উপর বিপদ আসল আর সাহাবীগণ ক্ষত-বিক্ষত হলেন।

তখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, তোমরা কবর খনন কর এবং তা প্রশস্ত কর।

২. কবরের দৈর্ঘ্য হবে মৃত ব্যক্তির উচ্চতা থেকে একটু বেশি। যাতে ব্যক্তির জন্য কবর ছোট না হয়ে যায়।

পীর বা মাজারে সিজদা করা সম্পর্কে ইসলাম কি বলে ?

৩. গভীরতা হবে মৃত ব্যক্তির দৈর্ঘ্যের অর্ধেক বা এ পরিমাণ যাতে কোন হিংস্র প্রাণী লাশকে মাটির উপর উঠাতে না পারে।

বগলী কবর কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি এর একটি।

৪. কবর খননের পর মৃত ব্যক্তিকে রাখার জন্য ক্বিলার দিকে অর্থাৎ পশ্চিম দেওয়ালে গর্ত করা। ইহাকে লাহাদ (বগলী) কবর বলা হয়।

লাহাদ বা বগলী কবর সিন্ধুক কবরের চাইতে উত্তম। কবর দেওয়ার পর কোন কাঁচা ডালা গেড়ে দিবে।

أَخْبَرَنَا عَمْرُو بْنُ عَلِيٍّ، قَالَ حَدَّثَنَا عَبْدُ الرَّحْمَنِ، قَالَ حَدَّثَنَا عَبْدُ اللَّهِ بْنُ جَعْفَرٍ

عَنْ إِسْمَاعِيلَ بْنِ مُحَمَّدِ بْنِ سَعْدٍ، عَنْ أَبِيهِ، عَنْ سَعْدٍ، قَالَ ‏:‏ الْحَدُوا لِي لَحْدًا

وَانْصِبُوا عَلَىَّ نَصْبًا كَمَا فُعِلَ بِرَسُولِ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم ‏.‏

আমর ইবনু আলী (রহঃ) … সাদ (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, তোমরা আমার জন্য লাহদ কবর খনন করবে এবং আমার কবরের উপরে কিছু গেড়ে দেবে,

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর কবরের উপরে যে রকম গেড়ে দেওয়া হয়েছিল।

৫. মাইয়্যেতকে কবরে রাখার সময় ‘বিসমিল্লাহি ওয়া আলা মিল্লাতি রাসুলিল্লাহ’ দোয়া পাঠ করা। মিল্লাতির জায়গায় ‘সুন্নাতি’ বললেও চলবে।

حَدَّثَنَا هِشَامُ بْنُ عَمَّارٍ حَدَّثَنَا إِسْمَعِيلُ بْنُ عَيَّاشٍ حَدَّثَنَا لَيْثُ بْنُ أَبِي سُلَيْمٍ عَنْ نَافِعٍ

عَنْ ابْنِ عُمَرَ عَنْ النَّبِيِّ صلى الله عليه وسلم ح

و حَدَّثَنَا عَبْدُ اللهِ بْنُ سَعِيدٍ حَدَّثَنَا أَبُو خَالِدٍ الْأَحْمَرُ حَدَّثَنَا الْحَجَّاجُ عَنْ نَافِعٍ

عَنْ ابْنِ عُمَرَ قَالَ كَانَ النَّبِيُّ صلى الله عليه وسلم إِذَا أُدْخِلَ الْمَيِّتُ الْقَبْرَ قَالَ

بِسْمِ اللهِ وَعَلَى مِلَّةِ رَسُولِ اللهِ وَقَالَ أَبُو خَالِدٍ مَرَّةً إِذَا وُضِعَ الْمَيِّتُ فِي لَحْدِهِ

قَالَ بِسْمِ اللهِ وَعَلَى سُنَّةِ رَسُولِ اللهِ وَقَالَ هِشَامٌ فِي حَدِيثِهِ

بِسْمِ اللهِ وَفِي سَبِيلِ اللهِ وَعَلَى مِلَّةِ رَسُولِ اللهِ

ইবনু ‘উমার (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, লাশ কবরে রাখার সময় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলতেন : বিসমিল্লাহ ওয়া আলা মিল্লাতি রাসূলিল্লাহ’’।

আবূ খারিদ (রহ.) বলেন, লামকে তার কবরে রাখার সময় তিনি বলতেনঃ ‘‘বিসমিল্লাহি ওয়া আলা সুন্নাতি রাসুলিল্লাহ’’।

হিশাম (রহ.) তার হাদীসে বলেন, ‘‘বিস্মিল্লাহি ওয়া ফী সাবীলিল্লাহি ওয়া আলা মিল্লাতি রাসূলিল্লাহ’’।

মাইয়্যেতকে ক্বিবলামুখী করে দেয়া কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি এর অন্তর ভূক্ত।

৬. মাইয়্যেতকে কবরে রেখে ডান দিকে ক্বিবলামুখী করে দেয়া সুন্নাত।

৭. যারা মৃত ব্যক্তিকে কবরে নামাবে তাদের ক্বিবলামুখী হওয়া।

وَعَنِ الْبَرَاءِ بْنِ عَازِبٍ قَالَ: خَرَجْنَا مَعَ رَسُولِ اللّهِ ﷺ فِي جَنَازَةِ رَجُلٍ مِنَ الْأَنْصَارِ

فَانْتَهَيْنَا إِلَى الْقَبْرِ وَلَمْ يُلْحَدْ بَعْدُ فَجَلَسَ النَّبِيُّ ﷺ مُسْتَقْبِلَ الْقِبْلَةِ وَجَلَسْنَا مَعَه

বারা ইবনু ‘আযিব (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমরা রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর সাথে আনসারদের এক ব্যক্তির জানাযার জন্য বের হলাম।

আমরা কবরস্থানে পৌঁছে দেখলাম (এখনো কবর তৈরি না হওয়ার কারণে) দাফনের কাজ শুরু হয়নি। তখন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ক্বিবলা

(কিবলা/কেবলা)র দিকে মুখ করে বসে গেলেন, আমরাও তাঁর সাথে বসে গেলাম।

মৃত্যুর পর চল্লিশা, মৃত্যুবার্ষিকী পালন করা কি জায়েজ ?

৮. মহিলা হলে পর্দার সঙ্গে নামানো মুস্তাহাব। শরীর প্রকাশ হয়ে যাওয়ার আশংকা থাকলে পর্দা করা ওয়াজিব।

للمرأة ستران: القبر والزوج. قيل: وأيهما أفضل؟ قال: القبر

নারীর জন্য দুটি বস্তুতে পর্দা রয়েছেঃ কবর এবং স্বামী। কেউ জিজ্ঞেস করল কোনটি উত্তম? তিনি বললেনঃ কবর।

কবরে মাটি দেওয়ার সুন্নত তরীকা।

৯. কবরে মাথার দিক থেকে মাটি দেয়া মুস্তাহাব।

মুল্লা ‘আলী ক্বারী বলেনঃ ইমাম আহমাদ দুর্বল সানাদে বর্ণনা করেছেন যে, তিনবার মাটি দেয়ার সময় প্রথমবার বলবে منها خلقناكم অর্থাৎ এ মাটিই থেকে আমি তোমাদেরকে সৃষ্টি করেছি।

দ্বিতীয়বার মাটি দেয়ার সময় বলবে, وفيها نعيدكم অর্থাৎ এ মাটিতে তোমাদেরকে ফিরিয়ে আনব।

তৃতীয়বার মাটি দেয়ার সময় বলবে, ومنها نخرجكم تارة اخرى অর্থাৎ এ মাটি থেকেই আমি তোমাদেরকে পুনরায় উত্তোলন করব।

১০. উটের পিঠের মতো দুই দিক ঢালু করে মাঝখানে আধা হাত পরিমাণ উঁচু করা।

وَعَنْ سُفْيَانَ التَّمَّارِ: أَنَّه رَأَى قَبْرَ النَّبِيِّ ﷺ مُسَنَّمًا

সুফ্ইয়ান তাম্মার (রহঃ) হতে বর্ণিত। তিনি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর কবরকে উটের পিঠের মতো (মুসান্নাম) উঁচু দেখেছেন।

১১. মাটি দেয়ার পর পানি ছিটানো মুস্তাহাব।

وَعَنْ جَعْفَرِ بْنِ مُحَمَّدٍ عَنْ أَبِيهِ مُرْسَلًا أَنَّ النَّبِيَّ ﷺ

حَثَا عَلَى الْمَيِّتِ ثَلَاثَ حَثَيَاتٍ بِيَدَيْهِ جَمِيعًا

وَأَنَّه رَشَّ عَلى قَبْرِ ابْنِه إِبْرَاهِيمَ وَوَضَعَ عَلَيْهِ حَصْبَاءَ

ইমাম জা‘ফার ইবনু মুহাম্মাদ (রহঃ) হতে বর্ণিত। তিনি তাঁর পিতা হতে মুরসাল সূত্রে বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেন,

নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নিজের দু’ হাতের মুষ্টি ভরে মাটি নিয়ে মাইয়্যিতের কবরের উপর তিনবার দিয়েছেন।

তিনি তার পুত্র ইব্রাহীমের কবরে পানি ছিটিয়েছেন এবং (চিহ্ন রাখার জন্য) কবরের উপর কংকর দিয়েছেন।

পীরের কাছে সন্তান চাওয়া যাবে | ইসলাম কি বলে

কবরস্থ করার সুন্নত পদ্ধতি অনুযায়ী মৃত ব্যক্তির জন্য দোয়া

১২. দাফন সম্পন্ন হওয়ার পর কিছুক্ষণ কবরের পাশে থেকে মৃতের জন্য দোয়া করা মুস্তাহাব।

وَحَدَّثَنِي عَنْ مَالِكٍ، عَنِ الْعَلاَءِ بْنِ عَبْدِ الرَّحْمَنِ، عَنْ أَبِيهِ

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ، أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم خَرَجَ إِلَى الْمَقْبُرَةِ فَقَالَ

السَّلاَمُ عَلَيْكُمْ دَارَ قَوْمٍ مُؤْمِنِينَ وَإِنَّا إِنْ شَاءَ اللَّهُ بِكُمْ لاَحِقُونَ وَدِدْتُ أَنِّي قَدْ رَأَيْتُ إِخْوَانَنَا ‏”

আবু হুরায়রা (রাঃ) হইতে বর্ণিত – রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম (একদ) কবরস্থানের দিকে গমন করিলেন। তিনি সেখানে পৌছার পর বলিলেনঃ

السَّلاَمُ عَلَيْكُمْ دَارَ قَوْمٍ مُؤْمِنِينَ

وَإِنَّا إِنْ شَاءَ اللَّهُ بِكُمْ لاَحِقُونَ

“তোমাদের উপর শান্তি বর্ষিত হোক। হে মু’মিন সম্প্রদায়ের বাসস্থানে (অর্থাৎ গোরস্তানে) বসবাসকারিগণ!

আমরা তোমাদের সহিত মিলিত হইব, ইনশাআল্লাহ।

এক কবরে কতজনকে দাপন করা যায়।

১৩. এক কবরে একজনকেই দাফন করা উত্তম। প্রয়োজনে একাধিক দাফনও করা যেতে পারে।

حَدَّثَنَا أَزْهَرُ بْنُ مَرْوَانَ الْبَصْرِيُّ، حَدَّثَنَا عَبْدُ الْوَارِثِ بْنُ سَعِيدٍ، عَنْ أَيُّوبَ

عَنْ حُمَيْدِ بْنِ هِلاَلٍ، عَنْ أَبِي الدَّهْمَاءِ، عَنْ هِشَامِ بْنِ عَامِرٍ

قَالَ شُكِيَ إِلَى رَسُولِ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم الْجِرَاحَاتُ يَوْمَ أُحُدٍ فَقَالَ

احْفِرُوا وَأَوْسِعُوا وَأَحْسِنُوا وَادْفِنُوا الاِثْنَيْنِ وَالثَّلاَثَةَ فِي قَبْرٍ وَاحِدٍ وَقَدِّمُوا أَكْثَرَهُمْ قُرْآنًا

‏ فَمَاتَ أَبِي فَقُدِّمَ بَيْنَ يَدَىْ رَجُلَيْنِ ‏.‏ قَالَ أَبُو عِيسَى وَفِي الْبَابِ عَنْ خَبَّابٍ وَجَابِرٍ وَأَنَسٍ

وَهَذَا حَدِيثٌ حَسَنٌ صَحِيحٌ ‏.‏ وَرَوَى سُفْيَانُ الثَّوْرِيُّ

وَغَيْرُهُ هَذَا الْحَدِيثَ عَنْ أَيُّوبَ عَنْ حُمَيْدِ بْنِ هِلاَلٍ عَنْ هِشَامِ بْنِ عَامِرٍ

وَأَبُو الدَّهْمَاءِ اسْمُهُ قِرْفَةُ بْنُ بُهَيْسٍ أَوْ بَيْهَسٍ ‏.‏

হিশাম ইবনু আমির (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে, তিনি বলেন, উহুদের যুদ্ধের সময় রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট শহীদদের কথা বলা হলে

তিনি বললেনঃ প্রশস্তভাবে কবর খনন কর, সৌহার্দ্যপূর্ণ আচরণ কর এবং একই কবরে দুই-দুইজন অথবা তিন-তিনজনকে দাফন কর।

এদের মধ্যে যে কুরআনে বেশি পারদর্শী ছিল তাকে সম্মুখে (কিবলার দিকে) রাখ। বর্ণনাকারী বলেন, আমার পিতাও মারা যান। তাকে দু’জনের সামনে রাখা হয়।

১৪. সমুদ্র ভ্রমণে কারো মৃত্যু হলে; সেখান থেকে স্থলভূমিতে নিয়ে আসতে দেরি হওয়ায় লাশ বিকৃত হওয়ার ভয় থাকলে, গোসল দিয়ে জানাযার পর সমুদ্রে ছেড়ে দিতে হবে। তবে স্থলভূমিতে কবরস্থ করা উত্তম।

আল্লাহ তায়ালা আমাদের সকলকে নিজের আপন জনদেরকে সুন্নত তরীকায় কবরস্থ করার তাওফিক দান করুক। আমিন।

মাও. ইবরাহিম মোস্তফা
মাও. ইবরাহিম মোস্তফা
Facebook Comments

1 Trackback / Pingback

  1. মৃত ব্যক্তির জন্য করণীয় | কবরের পাশে দাঁড়িয়ে ক্ষমা প্রার্থনা | Bangla Islam -

Comments are closed.