ইশা সেহরি তাহাজ্জুদের সময় কি এক সাথে শেষ হয়ে যায়।

ইশা সেহরি তাহাজ্জুদের সময়
ইশা সেহরি তাহাজ্জুদের সময়

ইশা সেহরি তাহাজ্জুদের সময় কি এক সাথে শেষ হয়ে যায়।

ইশা সেহরি তাহাজ্জুদের সময় কি একসাথে শেষ হয়ে যায় অর্থাৎ সোবহে সাদিক শেষ হওয়ার সাথে সাথেই উল্লেখিত তিন জিনিষের সময় হয়ে যায়?

সাথে সাথে এটাও বলুন তাহাজ্জুত কখন শুরু হয় কখন শেষ হয়?

আজ আমরা “ইশা সেহরি তাহাজ্জুদের সময় কি এক সাথে শেষ হয়ে যায়।” এ বিষয়টি নিয়ে বাংলা ইসলাম

(BanglaIslam .net) এর পক্ষ থেকে দলিল ভিত্তিক আলোচনা করার চেষ্টা করব। ইনশা-আল্লাহ।

আল্লাহ তায়ালার প্রশংসা ও রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের উপর দুরুদ পাঠ করে শুরু করছি…

উল্লেখিত তিনটি অর্থাৎ ইশা, সেহরি ও তাহাজ্জুদের সময় একটিই। তবে সুবহে সাদিকের কিছু পূর্বে সেহরি খেয়ে শেষ করা উত্তম। হাদীসে উল্লেখ রয়েছে সেহরি বিলম্ব করে খাও।

কিন্তু এত বিলম্ব করা যাবে না যে, সোবহে সাদিক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা হয়ে যায়। বরং তার পূর্বে সেহরি খাওয়া থেকে ফারেগ হতে হবে।

আর তাহাজ্জুতের সময় শুরু হয় ইশার নামাজের পর থেকে যা বাকি থাকে সারা রাত পর্যন্ত। তবে ঘুম থেকে উঠে শেষ রাতে তাহাজ্জুত পড়া উত্তম।

ইশা সেহরি তাহাজ্জুদের সময় কি এক সাথে শেষ হয়ে যায় তার দলিল সমূহ।

وَصَلَاةُ اللَّيْلِ وَأَقَلُّهَا عَلَى مَا فِي الْجَوْهَرَةِ ثَمَانٍ، وَلَوْ جَعَلَهُ أَثْلَاثًا فَالْأَوْسَطُ أَفْضَلُ، وَلَوْ أَنْصَافًا فَالْأَخِيرُ أَفْضَلُ.

قَالَ «يَحْسَبُ أَحَدُكُمْ إذَا قَامَ مِنْ اللَّيْلِ يُصَلِّي حَتَّى يُصْبِحَ أَنَّهُ قَدْ تَهَجَّدَ

إنَّمَا التَّهَجُّدُ الْمَرْءُ يُصَلِّي الصَّلَاةَ بَعْدَ رَقْدَةٍ» غَيْرَ أَنَّ فِي سَنَدِهِ ابْنَ لَهِيعَةَ وَفِيهِ مَقَالٌ

لَكِنَّ الظَّاهِرَ رُجْحَانُ حَدِيثِ الطَّبَرَانِيِّ الْأَوَّلِ لِأَنَّهُ تَشْرِيعٌ قَوْلِيٌّ مِنْ الشَّارِعِ

صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ – بِخِلَافِ هَذَا، وَبِهِ يَنْتَفِي مَا عَنْ أَحْمَدَ مِنْ قَوْلِهِ قِيَامُ اللَّيْلِ مِنْ الْمَغْرِبِ إلَى طُلُوعِ الْفَجْرِ اهـ مُلَخَّصًا

…..

قَوْلُهُ وَلَوْ جَعَلَهُ أَثْلَاثًا إلَخْ أَيْ لَوْ أَرَادَ أَنْ يَقُومَ ثُلُثَهُ وَيَنَامَ ثُلُثَيْهِ فَالثُّلُثُ الْأَوْسَطُ أَفْضَلُ مِنْ طَرَفَيْهِ

لِأَنَّ الْغَفْلَةَ فِيهِ أَتَمُّ وَالْعِبَادَةُ فِيهِ أَثْقَلُ وَلَوْ أَرَادَ أَنْ يَقُومَ نِصْفَهُ وَيَنَامَ نِصْفَهُ فَقِيَامُ نِصْفِهِ الْأَخِيرِ

أَفْضَلُ لِقِلَّةِ الْمَعَاصِي فِيهِ غَالِبًا وَلِلْحَدِيثِ الصَّحِيحِ

يَنْزِلُ رَبُّنَا إلَى سَمَاءِ الدُّنْيَا فِي كُلِّ لَيْلَةٍ حِينَ يَبْقَى ثُلُثُ اللَّيْلِ الْأَخِيرِ

فَيَقُولُ: مَنْ يَدْعُونِي فَأَسْتَجِيبَ لَهُ؟ مَنْ يَسْأَلُنِي فَأُعْطِيَهُ مَنْ يَسْتَغْفِرُنِي فَأَغْفِرَ لَهُ

وَمَعْنَى يَنْزِلُ رَبُّنَا يَنْزِلُ أَمْرُهُ كَمَا أَوَّلَهُ بِهِ الْخَلَفُ وَبَعْضُ أَكَابِرِ السَّلَفِ

وَتَمَامُهُ فِي تُحْفَةِ ابْنِ حَجَرٍ، وَذَكَرَ أَنَّ الْأَفْضَلَ مِنْ الثُّلُثِ الْأَوْسَطِ السُّدُسُ الرَّابِعُ وَالْخَامِسُ لِلْخَبَرِ الْمُتَّفَقِ عَلَيْهِ

أَحَبُّ الصَّلَاةِ إلَى اللَّهِ تَعَالَى صَلَاةُ دَاوُد، كَانَ يَنَامُ نِصْفَ اللَّيْلِ وَيَقُومُ ثُلُثَهُ وَيَنَامُ سُدُسَهُ
——–
ص25 – كتاب الدر المختار وحاشية ابن عابدين رد المحتار – باب الوتر والنوافل

Facebook Comments