অযুর মধ্যে দাড়ি ধৌত করা এবং খিলাল করার হুকুম । Bangla Islam

অযুর-মধ্যে-দাড়ি-ধৌত-করা-এবং-খিলাল-করার-হুকুম
অযুর মধ্যে দাড়ি ধৌত করা এবং খিলাল করার হুকুম । Bangla Islam

অযুর মধ্যে দাড়ি ধৌত করা এবং খিলাল করার হুকুম।

ফুক্বাহায়ে কেরাম অযুর মধ্যে দাড়ি ধৌত করা ও খিলাল করার হুকুমের ক্ষেত্রে বলেন যে চেহারা ধৌত করার সীমানা হলো মাথার চুলের গোড়া থেকে নিয়ে থুতনির নিচে পর্যন্ত।

এখন জিজ্ঞাসা করার বিষয় হল থুতনির নিচের দিকটা ধৌত করা জরুরী কিনা। যদি জরুরি হয়ে থাকে আর দাড়ি ঘন হয়।

তাহলে থুতনি কিভাবে ধৌত করবে? এবং দাড়ি খিলাল কেন করতে হয়?

আজ আমরা উক্ত মাসআলাটি নিয়ে দলিল বিত্তিক আলোচনা করব। ইনশা-আল্লাহ।

ফুক্বাহায়ে কেরাম চেহারা ধৌত করার যে সীমানা বর্ণনা করেছেন তার পূর্ণ অংশ ধৌত করা জরুরি।

এখন কথা হল থুতনিতে যদি দাড়ি হালকা থাকে যার মধ্য দিয়ে চেহারার চামড়া দেখা যায়।

তাহলে দাড়িসহ ওই চামড়া ধৌত করতে হবে। আর যদি দাড়ি এত ঘন হয় যে চামড়া দেখা যায় না তাহলে ওই চামড়া ধৌত করা জরুরি নয়।

বরং প্রথমে চুল্লি ভরে পানি থুতনির নিচে লাগিয়ে দিবে এবং কিছু পানি দাড়ির উপর প্রবাহিত করে দিয়ে সুন্নত তরিকায় দাড়ি খিলাল করে নিবে।

সঠিকটা আল্লাহ তাআলাই ভালো জানেন।

অযুর মধ্যে দাড়ি ধৌত করা এবং খিলাল করার হুকুমের দলিল সমূহ।

وَلَوْ قَطْرَةً. وَفِي الْفَيْضِ أَقَلُّهُ قَطْرَتَانِ فِي الْأَصَحِّ (مَرَّةً) لِأَنَّ الْأَمْرَ لَا يَقْتَضِي التَّكْرَارَ (وَهُوَ) مُشْتَقٌّ مِنْ الْمُوَاجَهَةِ، وَاشْتِقَاقُ الثُّلَاثِيِّ مِنْ الْمَزِيدِ إذَا كَانَ أَشْهَرَ فِي الْمَعْنَى شَائِعٌ كَاشْتِقَاقِ الرَّعْدِ مِنْ الِارْتِعَادِ وَالْيَمِّ مِنْ التَّيَمُّمِ (مِنْ مَبْدَإِ سَطْحِ جَبْهَتِهِ) أَيْ الْمُتَوَضِّئِ بِقَرِينَةِ الْمَقَامِ (إلَى أَسْفَلِ ذَقَنِهِ)
——–
ص96 – كتاب الدر المختار وحاشية ابن عابدين رد المحتار

……….

وَغَسْلُ جَمِيعِ اللِّحْيَةِ فَرْضٌ) يَعْنِي عَمَلِيًّا (أَيْضًا) عَلَى الْمَذْهَبِ الصَّحِيحِ الْمُفْتَى بِهِ

الْمَرْجُوعِ إلَيْهِ، وَمَا عَدَا هَذِهِ الرِّوَايَةَ مَرْجُوعٌ عَنْهُ كَمَا فِي الْبَدَائِعِ.

ثُمَّ لَا خِلَافَ أَنَّ الْمُسْتَرْسِلَ لَا يَجِبُ غَسْلُهُ وَلَا مَسْحُهُ

بَلْ يُسَنُّ، وَأَنَّ الْخَفِيفَةَ الَّتِي تُرَى بَشَرَتُهَا يَجِبُ غَسْلُ مَا تَحْتَهَا كَذَا فِي النَّهْرِ

وَفِي الْبُرْهَانِ: يَجِبُ غَسْلُ بَشَرَةٍ لَمْ يَسْتُرْهَا الشَّعْرُ كَحَاجِبٍ وَشَارِبٍ وَعَنْفَقَةٍ فِي الْمُخْتَارِ
——–
ص100 – كتاب الدر المختار وحاشية ابن عابدين رد المحتار

……………

قَوْلُهُ:: وَتَخْلِيلُ اللِّحْيَةِ) هُوَ تَفْرِيقُ شَعْرِهَا مِنْ أَسْفَلَ إلَى فَوْقَ، بَحْرٌ، وَهُوَ سُنَّةٌ عِنْدَ أَبِي يُوسُفَ وَأَبُو حَنِيفَةَ وَمُحَمَّدٌ يُفَضِّلَانِهِ وَرَجَّحَ فِي الْمَبْسُوطِ قَوْلَ أَبِي يُوسُفَ كَمَا فِي الْبُرْهَانِ شُرُنْبُلَالِيَّةٌ. وَفِي شَرْحِ الْمُنْيَةِ: وَالْأَدِلَّةُ تُرَجِّحُهُ وَهُوَ الصَّحِيحُ. اهـ. قَالَ فِي الْحِلْيَةِ: وَالظَّاهِرُ أَنَّ هَذَا كُلَّهُ فِي الْكَثَّةِ، أَمَّا الْخَفِيفَةُ فَيَجِبُ إيصَالُ الْمَاءِ إلَى مَا تَحْتَهَا. اهـ. وَجَزَمَ بِهِ الشُّرُنْبُلَالِيُّ فِي مَتْنِهِ (قَوْلُهُ: لِغَيْرِ الْمُحْرِمِ) أَمَّا الْمُحْرِمُ فَمَكْرُوهٌ نَهْرٌ (قَوْلُهُ: بَعْدَ التَّثْلِيثِ) أَيْ تَثْلِيثِ غَسْلِ الْوَجْهِ إمْدَادٌ.
——–
ص117 – كتاب الدر المختار وحاشية ابن عابدين رد المحتار

Facebook Comments

1 Trackback / Pingback

  1. অযুর মধ্যে মাসেহ ভুলে যাওয়া এবং তার জন্য নতুন পানি নেওয়া । Bangla Islam

Comments are closed.